Skip to main content

Yadav is leaving Tejashwi's side, RJD in trouble before elections

Yadav is leaving Tejashwi's side, RJD in trouble before elections


Rashtriya Janata Dal (RJD) chief Lalu Prasad had given political succession to his younger son Tejashwi Yadav almost five years ago, ignoring the claims of other members of his family. The responsibility to pursue Lalu Yadav's dream is on the shoulders of Tejashwi Yadav, but in Lalu's absence, RJD is being shattered like cards. Just before the assembly elections, one leader after another is leaving Tejashwi's support. These include the leaders of the Yadav community, considered to be the original bank of the RJD, which has become a cause of concern for the RJD.

The NDA seems to be united under the leadership of Nitish Kumar for the Bihar Assembly elections. However, the latest statement by LJP leader Chirag Paswan has also sparked discussion about the NDA. But on the other hand, the allies involved in the grand alliance are not ready to consider Tejashwi Yadav as their leader. Former CM Jitan Ram Manjhi still considers him inexperienced, while the Congress is also not speaking openly in support of Tejashwi. Not only this, RJD leaders are also constantly leaving the party due to the stunning.

Also read:

Doda district of Jammu and Kashmir freed from terrorists


Recently, five Legislative Council members have quit the party and joined the JDU, while veteran leaders like Raghuvansh Prasad have resigned from the post of National Vice President. Among the people joining RJD and joining JDU, Qamar Alam Muslims and Dilip Rai Yadav come from the community. Apart from this, now state vice president and former MLA Vijender Yadav has resigned from RJD while former MLA Bhola Yadav has also raised the flag of revolt.

Bhola Yadav is also on the path of revolt

Recently, former MLA from Raghopur Bhola Yadav staged a sit-in with his supporters outside the house of former CM Rabri Devi. In 1995, Bhola Yadav left his seat for Lalu Prasad Yadav, after which Lalu Yadav contested and won from Raghopur assembly seat. After this, Rabri Devi also contested from this seat and won. Bhola Yadav had assumed all the responsibility for the election of these two. Currently, Tejashwi Yadav is an MLA himself from this ancestral seat of Lalu family and Bhola Yadav has threatened to bear the brunt in the election.

Vijendra Yadav said goodbye to RJD

Vijender Yadav's role has been as a kingmaker in Bhojpur area of ​​Bihar. For the last 30 years, he is known as the Yadav face of RJD in Ara and Bhojpur areas. At present, RJD was the state vice president. He was angry with the party for a long time. Vijendra says that now the elders are not being respected in RJD. He said that Lalu Yadav is no longer the Lalu he used to be between 1990 and 2000. Vijendra Yadav's brother Arun Yadav is an RJD MLA with the message.

Dilip Rai left RJD

Legislative councilor Dilip Rai, who left RJD, was considered the face of the party in Sitamarhi and Shivhar areas of Bihar. Dilip Rai alleged that Tejashwi Yadav is running the party in an arbitrary manner and no opinion of party leaders is being sought. Dilip Rai said that there is no longer an atmosphere of working with respect in RJD. Nitish Kumar's work has changed the fate and picture of Bihar, due to which he has joined JDU. In this way, many kinds of questions are arising inside the RJD also about Tejashwi Yadav.

Yadav equation in Bihar

The Yadav voter in Bihar is close to 15 percent and is considered a traditional voter of RJD. This basic vote bank of Lalu has an eye on the Yadav community from BJP to JDU. Let me tell you that in 2000, the number of Yadav MLAs in Bihar was 64, which increased to 54 in 2005, and then in 2010 the number came down to 39, but in 2015 it increased to 61.

In the 2015 assembly elections, Lalu Yadav's party contested 101 seats, in which he gave tickets to Yadavs in 48 seats. 42 of them were successful in winning. Nitish Kumar was successful in reaching power by mobilizing the backward people. To balance Yadav politics, JDU, which fought 101 seats, also gave 12 tickets to Yadavs, out of which 11 had won. The Congress fielded Yadav candidates on 4 out of 41 seats, out of which two won and reached the assembly.

At the same time, BJP-led NDA also tried to keep Yadav politics in the 2015 elections. The NDA fielded a total of 26 Yadav candidates, including 22 from BJP, two from LJP, and two from Manjhi's party Ham. 6 Yadav MLAs from BJP came after winning.

RJD's falling base

There has been a steady decline in the vote share of RJD in Bihar. In the 2004 Lok Sabha elections, RJD got 30.7 percent of the total votes. Let us tell that the Janata Dal got about 5 percent more votes in the 1990 assembly elections than when Lalu Yadav was appointed as the Chief Minister for the first time. Since then, RJD's vote share has been steadily falling since then. 25 percent in the 2000 Lok Sabha elections, 23.45 percent in the 2005 assembly elections, 19.3 percent in the 2009 Lok Sabha elections, 18.8 percent in the 2010 assembly elections, 20.5 percent in the 2014 Lok Sabha elections, 18.3 percent in the 2015 Vidhan Sabha and in the 2019 general elections. RJD got 15.4 percent votes.

Comments

Popular posts from this blog

মোটিভেশনাল স্পিকার সন্দীপ মহেশ্বরী জীবন কাহিনী

আমাদের জীবন অতিবাহিত করতে গেলে নিজেদেরকেই কিছু প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়। যে প্রশ্নগুলি আমরা নিজেরাই নিজেকে করি। কিছু ক্ষেত্রে উত্তর পেয়ে যায় আবার কিছু ক্ষেত্রে উত্তর পাই না। আর যখন উত্তর পাই না তখন মনে হয় জীবনটা হঠাৎ করে থেমে গেল।

যতক্ষণ না সে উত্তর আমরা খুঁজে পাই, মনে হয় জীবনটা আর সামনের দিকে এগোচ্ছে না। তখনই আমাদের কিছু মানুষের সাহারা লাগে। কিন্তু, জীবন আমাদের এমন একটা পর্যায়ে নিয়ে যায়, যখন সাহারা দেওয়ার মতন মানুষ কাছে পাইনা আমরা। আর ঠিক তখনই আমাদের ভিতরে এক অমানবিক ডিপ্রেশান নামক আত্মা ঢুকে বসে। আমরা প্রায় সকলেই এই ডিপ্রেশন নামক অমানবিক আত্মা এর কাছে হার মেনে যাই, আর নিজেকে শেষ করার পর্যন্ত চিন্তাভাবনা করে ফেলি।

কিন্তু এই মানুষটি যার কথা আমি আপনাকে বলছি, তিনি হলেন বেস্ট ইন্ডিয়ান মোটিভেশনাল স্পিকার সন্দীপ মহেশ্বরী। তার জীবনেও এরকম অনেক ওঠানামা এসেছে। কিন্তু আমাদের মত যদি তিনিও সেই ডিপ্রেশনকে, সেই সময় টিকে ধরে নিয়ে বসে থাকতেন তাহলে হয়তো আমরা আজকে তাকে যে জায়গায় দেখছি তাকে হয়তো সেই জায়গায় পেতাম না।

মোটিভেশনাল স্পিকার সন্দীপ মহেশ্বরী জীবন কাহিনী সন্দীপ মহেশ্বরী আমার ত…

Live Update : সাইক্লোন ঘূর্ণিঝড় আম্ফান

আম্ফন, আম্ফান, অ্যাম্ফান কলকাতা আই এম ডি এর অনুসারে এই ঘুর্ণবত এর সৃষ্টি দীঘা থেকে ১৭৭ কিমি দূরে দক্ষিণ পূর্ব দিকে। আর এই কারনে এই ঝড় কলকাতা তে বেশি প্রভাব ফেলবে ফনি ঝড় এর থেকে। বিশেষজ্ঞ দের মতে এই ঝড় কলকাতা এর নিকট উত্তর এবং উত্তর পূর্ব এর দিকে বাড়ার সম্ভাবনা তীব্র।

আগেই আমরা ফনি এর সাথে মোকাবিলা করে এসেছি। যদিও সেই ফনি সব জায়গায় তাণ্ডব দেখায়নি। কিন্তু যেখানে দেখিয়াছে সেখানে সব নিঃস্ব জয়ে গেছে। ফনি এর পর এবার এসেছে ঘুর্ণবাত ঝড় অম্ফান। বিশেষজ্ঞ দের মতে এই ঝড় আরো ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারে।
কলকাতা আই এম ডি এর অনুসারে এই ঘুর্ণবত এর সৃষ্টি দীঘা থেকে ১৭৭ কিমি দূরে দক্ষিণ পূর্ব দিকে। আর এই কারনে এই ঝড় কলকাতা তে বেশি প্রভাব ফেলবে ফনি ঝড় এর থেকে। বিশেষজ্ঞ দের মতে এই ঝড় কলকাতা এর নিকট উত্তর এবং উত্তর পূর্ব এর দিকে বাড়ার সম্ভাবনা তীব্র। 
এনডিআরএফ এর প্রধান এম এন প্রধান বলেছেন যে উড়িষ্যা এর নিকট হাওয়া এর গতি তীব্র হয়েছে। পারাদ্বীপ এ 100 কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় এই মুহূর্তে হাওয়া চলছে। এখনো পশ্চিমবঙ্গে এই হাওয়ার বেগ অতটা তীব্র হয়নি।
ওড়িশা এর বালাসোর এবং ভদ্রক অন্যদিকে পশ্চিমব…

DjM Originals Bangla Choto Golpo : হঠাৎ সারপ্রাইজ

DjM Originals : হঠাৎ সারপ্রাইজ
তন্ময় রায়
DjM Originals Bangla choto golpo: টিভিতে রামায়ণ দেখছিলাম, আর এখন এই গল্পটি লিখতে লিখতে রামায়ণের বাল্মিকী একটা কথা মনে পড়ে গেল। লব এবং কুশ যখন বাল্মীকি কে জিজ্ঞাসা করেন যে, কার গতি সব থেকে বেশি? উত্তরে বাল্মিকী শব্দের গতি এবং আলোর গতি এর কথা বলেন। এরপরেও যখন লব জিজ্ঞাসা করে এরপরেও কি কারো গতি আছে যেটা আরো বেশি? তখন বাল্মিকী তাদের বলেন, "হ্যাঁ আছে, মনের গতি"।

এই গল্পটি লিখতে লিখতে বাল্মিকী এর সেই কথাটাই মনে পড়ে গেল। সত্যিই শব্দের গতি, আলোর গতি এইসব থেকেই আরো গতিতে আমাদের পুরো ব্রহ্মাণ্ডে বিচরণ করে আমাদের মনের গতি। গল্পটা কি এবারে বলি

করণ পুরি নামক একজন বৃদ্ধা হরিয়ানা এর সেক্টর 7 থাকেন এবং তিনি একাই সেই বাড়িতে থাকেন। তার একটা ছেলে আছে, সে আমেরিকায় থাকে। 28 এপ্রিল পুরি বাবুর জন্মদিন। তাকে শুভেচ্ছা জানানোর কেউ নেই। তাছাড়াও বাইরে যা অবস্থা, তাতে তিনি বাইরে গিয়ে যে একটু নিজের মতন করে খোলা আকাশের মত একটু বাঁচার চেষ্টা করবেন, সেটাও তিনি তার এই জন্মদিনের দিন করতে পারছেন না। নাকি কেউ তার বাড়িত আসছে। কারণ বাইরে যা অবস্থা তা তো সবারই জানা…